ডিগ্রী ২য় বর্ষ ২০২১ ইসলামিক স্টাডিজ ৪র্থ পত্র স্পেশাল শর্ট সাজেশন রেডি আছে নিতে চাইলে ম্যাসেজ করুন। হেল্পলাইন নম্বর: ০১৯৩৩০৮৯৬৪৯
Welcome To TopSuggestion

জনসংখ্যা বন্টনের নিয়ামকগুলো বর্ণনা কর।


জনসংখ্যা বন্টনের নিয়ামকগুলো বর্ণনা কর।


 ভূমিকা: জনসংখ্যা যে কোনো দেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। জনমিতিক, রাজনৈতিক এবং আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে জনসংখ্যার আকারগত বৈশিষ্ট্যের বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। কোনো দেশের আয়তন এবং সম্পদের সাথে জনসংখ্যার আকার সামঞ্জস্যপূর্ণ হলে সে দেশ দ্রুত উন্নতি লাভ করে। ঠিক তেমনি জনসংখ্যা কম হলে পর্যাপ্ত সম্পদ থাকার পরও জনশক্তির অভাব দেখা দেয়। আবার সম্পদের তুলনায় অধিক জনসংখ্যা হলে তা দেশের জন্য বিভিন্ন সমস্যা তৈরি করে। তাই বিশ্বের বর্তমান জনসংখ্যা পরিবর্তনের ধারা, ঘনত্ব, বন্টনের নিয়ামক, প্রভাব ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ আলোচ্য বিষয়। একই সাথে বিশ্ব জনসংখ্যার পাশাপাশি বাংলাদেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির ধারা, সমস্যা ও সমাধানের উপায় জানা জরুরি। বিশ্বায়ন এবং যোগাযোগ ও প্রযুক্তিগত উন্নতির কারণে অতিরিক্ত জনবহুল অঞ্চল থেকে জনঘাটতি অঞ্চলে ঘটছে অভিবাসন। বৈশ্বিক পর্যায়ে যে অভিবাসন ঘটছে তার প্রভাব পড়েছে আমাদের দেশেও। এদেশের মানুষও প্রতিনিয়ত দেশের অভ্যন্তরে এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মের সন্ধানে ছুটে যাচ্ছে। এ সকল অভিবাসী নিজেদের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

জনসংখ্যা বন্টনে নিয়ামকসমূহ: আমরা যদি আমাদের চারপাশে দেখি তাহলে দেখব যে, সব এলাকায় সমান জনসংখ্যা নেই। ঠিক তেমনি পৃথিবীর জনসংখ্যার বন্টনও সর্বত্র সমান নয়। স্থানভেদে এই জনসংখ্যা বন্টনের তারতম্য রয়েছে। জনসংখ্যা বন্টনে কতকগুলো নিয়ামক কাজ করে। এই নিয়ামকগুলো জীবনধারণের জন্য অনুকূল হলে সেখানে মানুষের সংখ্যাধিক্য থাকে। আবার প্রতিকূল অবস্থায় জনসংখ্যার পরিমাণ কমে যায়। পৃথিবীর জনসংখ্যা বন্টনে যেসব নিয়ামক গুরুত্বপূর্ণ প্রভাবক হিসেবে কাজ করে সেগুলোকে আমরা প্রধানত দুইভাগে ভাগ করতে পারি। যথাক. প্রাকৃতিক নিয়ামক এবং খ. অপ্রাকৃতিক নিয়ামক।

ক. প্রাকৃতিক নিয়ামক (Physical Factors)

১. জলবায়ু: জনসংখ্যা বন্টনে জলবায়ু একটি গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক। পৃথিবীর অনুকূল জলবায়ু অঞ্চলে জনসংখ্যা বেশি। অপরদিকে প্রতিকূল জলবায়ু অঞ্চলে জনসংখ্যা কম। মরুভূমি, শীতল বরফাচ্ছিত বা গ্রীষ্মকালীন জলাবদ্ধ অঞ্চলে জনসংখ্যা কম। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, সাহারা ও কালাহারি মরুভূমিতে প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১ জনের কম লোক বাস করে। অপরদিকে অনুকূল জলবায়ুর কারণে বাংলাদেশে প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১০২৮ জন লোক বসবাস করে।

২. ভূমিরূপ : পৃথিবীর সমভূমি অঞ্চলে জনসংখ্যার ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি। সমতল ভূমিই মানুষ বসবাসের আদর্শ স্থান। সমতল ভূমিতে কৃষিকাজ, শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ যাবতীয় কার্যাবলি সহজেই সম্পন্ন করা যায়। আবার মরুভূমি বা পার্বত্য অঞ্চলে জনজীবন কষ্টকর বলে জনসংখ্যার ঘনত্ব একেবারেই কম।

৩. ভৌগোলিক অবস্থান : ভৌগোলিক অবস্থানের উপর জনসংখ্যার বন্টন নির্ভরশীল। নিম্ন অক্ষাংশে অবস্থিত দেশসমূহে অতিরিক্ত উত্তাপ ও বৃষ্টিপাত এবং উচ্চ অক্ষাংশে অবস্থিত দেশসমূহে প্রচন্ড শৈত্যের কারণে কৃষিকাজ তেমন হয় না। ফলে ঐ সকল অঞ্চলে জনবসতি খুবই কম, আবার কোথাও কোথাও নেই বললেই চলে। পরিমিত বৃষ্টিপাত ও উত্তাপের জন্য মধ্য অক্ষাংশের দেশগুলিতে জনবসতি ঘন।

৪. মৃত্তিকা : উর্বর মৃত্তিকা জনসংখ্যা বন্টনের একটি অন্যতম নিয়ামক। কৃষিভিত্তিক অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের জন্য উর্বর মৃত্তিকার প্রয়োজনীয়তা সবচেয়ে বেশি। যেসব দেশের মৃত্তিকা উর্বর (যেমন- বাংলাদেশ, ভারত, চীন প্রভৃতি) সেসব দেশে জনসংখ্যার ঘনত্ব বেশি।

৫. পানির প্রাচুর্যতা : পর্যাপ্ত পানি জনসংখ্যা বন্টনের গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক। সুদূর প্রাচীনকাল থেকেই পানিকে কেন্দ্র করে জনবসতি গড়ে উঠেছে। উদাহরণ হিসেবে আমরা বলতে পারি নীল নদকে কেন্দ্র করে মিশরীয় সভ্যতা গড়ে উঠেছে।

৬. সম্পদের পর্যাপ্ততা : বিভিন্ন প্রকার সম্পদ যেমন- শক্তি সম্পদ, খনিজ সম্পদ, বনজ সম্পদ ইত্যাদি জনসংখ্যা বন্টনের উপর প্রভাব বিস্তার করে। এসব সম্পদকে প্রক্রিয়াজাত করে জনগণ জীবিকা নির্বাহ করে থাকে।

৭. জীবজগৎ : বিশ্ব জনসংখ্যা বন্টনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের উদ্ভিদ এবং প্রাণির বিন্যাস ধারা পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত। অরণ্যভূমি, তৃণভূমি, কাঁটাযুক্ত ঝোপঝাড় ইত্যাদি জনসংখ্যা বিস্তারের অনুকূল নয়। অন্যদিকে প্রেইরি অঞ্চল, আদি আমেরিকান এবং পরবর্তিতে গম চাষীদের জন্য বৈশিষ্ট্যপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।

খ. অপ্রাকৃতিক নিয়ামক (Non Physical Factors)

১. কর্মসংস্থানের সুযোগ : মানুষের জীবনধারণের জন্য কর্মসংস্থান অপরিহার্য। যে সকল অঞ্চলে কর্মসংস্থানের সুযোগ রয়েছে সে সকল স্থান স্বভাবতই জনসংখ্যা বন্টনে প্রভাব বিস্তার করে থাকে। উদাহরণস্বরূপ- ঢাকা, মুম্বাই, টোকিওতে কর্মসংস্থানের সুযোগ বেশি থাকায় এসব স্থানে বসবাসের জন্য জনসংখ্যা অধিক আকৃষ্ট হয়।

২. শিল্প ও বাণিজ্য : বিশ্বব্যাপী শিল্প ও বাণিজ্য কেন্দ্রগুলোতে জনসংখ্যার চাপ অত্যধিক। শিল্প ও বাণিজ্য কেন্দ্রগুলোতে বিপুল সংখ্যক শ্রমিকসহ বিভিন্ন ধরনের কর্মযুক্ত লোক বসবাস করে। উদাহরণস্বরূপ, বাংলাদেশের চট্টগ্রাম শহর।

৩. অভিগমন : মানুষ তার প্রয়োজনের তাগিদে একস্থান থেকে অন্যস্থানে গমন করে থাকে। অভিগমন সাধারণত অনুন্নত দেশগুলো থেকে উন্নত দেশগুলোতে হয়ে থাকে যা বিশ্ব জনসংখ্যা বন্টনকে প্রভাবিত করে।

৪. প্রযুক্তি : প্রযুক্তিগত উন্নয়ন জনসংখ্যার বন্টনকে প্রভাবিত করে থাকে। প্রযুক্তির উন্নতির ফলে ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প, কৃষিসহ বিভিন্ন খাতে ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে যা বিশ্ব জনসংখ্যা বন্টনের একটি নিয়ামকে পরিণত হয়েছে।

৫. অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের ধরণ : অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের ধরণ জনসংখ্যা বন্টনকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে। যেমননিবিড় কৃষিভিত্তিক এলাকায় জনসংখ্যার আধিক্য দেখা যায়।

৬. ঐতিহাসিক : মানুষ সাধারণত নিজ নিজ আবাসস্থল পরিবর্তন করতে চায় না। অধিকাংশ মানুষ পৈতৃক ভিটায় বসবাস করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। এ কারণে বিশেষ করে গ্রামীন এলাকায় জনসংখ্যা বাড়তে থাকে।

৭. রাজনৈতিক : রাজনৈতিক কারণেও কোনো অঞ্চল বা দেশে জনসংখ্যা হ্রাস-বৃদ্ধি হতে পারে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পূর্বে সৈন্যের প্রয়োজনে লোকসংখ্যা বৃদ্ধির জন্য জার্মানির সকল পিতা-মাতাকে অধিক হারে সন্তান জন্মদানের পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। অবশ্য এ ধরনের রাজনৈতিক কারণ এখন প্রতীয়মান হয় না। তবে অনেক দেশে আয়তনের তুলনায় জনসংখ্যা একবারেই কম হওয়া এবং জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার শূন্যের কোটায় নেমে যাওয়ায় অধিক সন্তানের জন্য উৎসাহিত করা হয়। আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে অভিবাসনকে উৎসাহিত করা হয়।

৮. সরকারি নীতি : সরকারের গৃহীত সামাজিক ও অর্থনৈতিক নীতির ফলে জনসংখ্যা বন্টন প্রভাবিত হয়।

উপসংহার: পৃথিবীর সর্বত্র জনসংখ্যা বন্টন সমান নয়। জনসংখ্যা বন্টনে অনেকগুলো নিয়ামক কাজ করে থাকে। এই নিয়ামকগুলোকে প্রধানত দুইভাগে ভাগ করা হয়। যথা- প্রাকৃতিক নিয়ামক এবং অপ্রাকৃতিক নিয়ামক। প্রাকৃতিক নিয়ামকের মধ্যে রয়েছে- জলবায়ু, ভূমিরূপ, মৃত্তিকা, ভৌগোলিক অবস্থান, পানি ও সম্পদের পর্যাপ্ততা, জীবজগৎ প্রভৃতি। অপ্রাকৃতিক নিয়ামকগুলোর মধ্যে রয়েছে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড, কর্মসংস্থান, শিল্প-বাণিজ্য, অভিগমন, প্রযুক্তি, সরকারি নীতি, ঐতিহাসিক, রাজনৈতিক প্রভৃতি। প্রাকৃতিক এবং অপ্রাকৃতিক এসব নিয়ামকগুলো সমন্বিতভাবে জনসংখ্যা বন্টনকে প্রভাবিত করে।

Share This

0 Response to "জনসংখ্যা বন্টনের নিয়ামকগুলো বর্ণনা কর।"

Post a Comment

Popular posts