করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা নেই।। শিক্ষামন্ত্রী।
Welcome To TopSuggestion

মেধা ও সাধারণ বৃত্তি সংক্রান্ত তথ্য সংশোধন

মেধা ও সাধারণ বৃত্তি সংক্রান্ত  তথ্য সংশোধন

 

দেশের সব সরকারি-বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মেডিকেল কলেজ, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়কে বিদ্যালয়ের অধ্যয়নকারী ২০১৯-২০ এবং ২০২০-২০২১ অর্থবছরের রাজস্ব খাতভুক্ত মেধা ও সাধারণ কোটায় বৃত্তিপ্রাপ্ত (পিইসি,জেএসসি, এসএসসি, এইচএসসি এবং স্নাতক (পাস/সম্মান) পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে) বৃত্তিপ্রাপ্ত নিয়মিত শিক্ষার্থীদের বৃত্তির অর্থ G2P পদ্ধতিতে EFT এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ব্যাংক হিসাবে প্রেরণের লক্ষ্যে তথ্য এন্ট্রি ও

সংশোধন সংক্রান্তঃ
অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২০১৯-২০২০ অর্থবছর হতে রাজস্ব খাতভুক্ত সকল ধরনের বৃত্তি অর্থ g2p পদ্ধতিতে EFT এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীর ব্যাংক হিসাবে(bank account) প্রেরণর কার্যক্রম চলমান রয়েছে। কিছু কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তথ্য অদ্যাবধি এন্ট্রি প্রদান করেনি এবং কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রেরিত তথ্যে ব্যাংক হিসাব নম্বর, ব্যাংক ও শাখার নাম, পরীক্ষার সালসহ বিভিন্ন ধরনের ভুল রয়েছে। এছাড়া কিছু, শিক্ষার্থীর ব্যাংক হিসাব নম্বর, রাউটিং নম্বর সহ ব্যাংক সংক্রান্ত কিছু তথ্য যথাযথ মিল না থাকায় EFT Bounced Back হয়েছে। ফলশ্রুতিতে, ২০১৯-২০২০ এবং ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের সকল শিক্ষার্থীর প্রাপ্য টাকা তাদের ব্যাংক হিসাবে প্রেরণ করা সম্ভব হচ্ছে না।
👉 এমতাবস্থায়, দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান/দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তাকে( মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ব্যাতীত) উল্লেখিত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি অর্থ প্রদানের লক্ষ্যে বর্ণিত তথ্যসমূহ আগামী ০৭/০৬/২০২১ খ্রি. তারিখের মধ্যে MIS অনলাইন সফটওয়্যার লিংকে প্রবেশ করে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রি ও ভুল সংশোধনের জন্য অনুরোধ করা হলো।
★ যেসব শিক্ষার্থী ২০১৯-২০ অর্থবছরে তাদের ব্যাংক হিসেবে বৃত্তির টাকা পেয়েছে এবং পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়েছে তাদের তথ্য নতুন করে এন্ট্রি করতে হবে না। তবে, নির্বাচিত ৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স শ্রেণিতে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থী-যারা মাস্টার্সে পড়ছেন, ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের উত্তীর্ণ এসএসসি ও এইচএসসিতে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থী এবং সবউপবৃত্তি ও পেশামূলক বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য ক্ষেত্রে এমআইএস সফটওয়্যারে নতুন তথ্য ও ভুল তথ্য সংশোধন করতে হবে। আর টাকা বাউন্স ব্যাংক হওয়া শিক্ষার্থীদের তথ্য এমআইএস সফটওয়্যারে সংশোধন করতে হবে।  
✅ #উল্লেখ্য, উক্ত নোটিশটি শুধুমাত্র পিইসি,জেএসসি, এসএসসি, এইচএসসি এবং স্নাতক (পাস/সম্মান) পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে মেধা ও সাধারণ কোটায় বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের জন্য,যাদের একাউন্ট তথ্যভুল থাকার কারণে ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাইনি! তাদেরকে আগামী ৭ জুনের মধ্যে বর্তমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগাযোগ করে তথ্য সংশোধন করতে হবে।
⛔️ স্নাতক ডিগ্রী (পাস) কোর্সের উপবৃত্তির সংক্রান্ত কোনো কার্যক্রম নয়...⛔️

Share This

0 Response to "মেধা ও সাধারণ বৃত্তি সংক্রান্ত তথ্য সংশোধন"

Post a Comment

Popular posts