অনার্স এবং ডিগ্রী প্রথম বর্ষের স্পেশাল শর্ট সাজেশন রেডি আছে যাদের লাগবে হোয়াটস্যাপ এ যোগাযোগ করুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।
অনার্স প্রথম এবং ডিগ্রী প্রথম বর্ষের নভেম্বর থেকে পরীক্ষা শুরু হবে!! কাজেই যাদের ৯৯% কমন রকেট স্পেশাল সাজেশন লাগবে আজই যোগাযোগ করুন।।
Earn Free BTC

Make Money Online
অনার্স চতুর্থ বর্ষের সকল বিভাগের স্পেশাল সাজেশন রেডি আছে যাদের লাগবে যোগাযোগ করুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। হোয়াটস্যাপ +8801925492441
Welcome To TopSuggestion

ব্যষ্টিক ও সামষ্টিক অর্থনীতি কাকে বলে

ব্যষ্টিক ও সামষ্টিক অর্থনীতি কাকে বলে

 

ভূমিকা: আধুনিক কালে অর্থনীতিকে পদ্ধতিগত দিক হতে দুই ভাগে ভাগ করা হয়। যথা: (ক) ব্যষ্টিক অর্থনীতি ও (খ) সামষ্টিক অর্থনীতি। ১৯৩৩ সালে অসলো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রগনার ফ্রিশ কতৃক এ শব্দটি সর্বপ্রথম ব্যবহৃত হয়।

ব্যষ্টিক অর্থনীতি ও সামষ্টিক অর্থনীতির মধ্যে নিম্নলিখিত পার্থক্যগুলো বিদ্যমান:
শব্দগত পার্থক্য: ব্যষ্টিক বা Micro  শব্দের অর্থ হলো ক্ষুদ্র বা ছোট। অপরদিকে সামষ্টিক বা Macro শব্দের অর্থ হলো‌ বৃহৎ বা বিশাল।

ব্যষ্টিক অর্থনীতি: অর্থনীতির যে শাখায় অর্থব্যবস্থার ক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র একক যেমন– একজন ভােক্তা, একটি পণ্যের দাম, একটি উৎপাদন প্রতিষ্ঠান, একটি শিল্প ইত্যাদির আচরণ বিশ্লেষণ করা হয় তাকে ব্যষ্টিক অর্থনীতি বলে। ব্যষ্টিক অর্থনীতির আওতা ও পরিধি ক্ষুদ্র।

 

সামষ্টিক অর্থনীতি বলে:  অর্থনীতির যে শাখায় অর্থব্যবস্থার সামগ্রিক দিক যেমন- মােট ভােগ ব্যয়, মােট বিনিয়ােগ ব্যয়, জাতীয় আয় ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলােচনা করা হয় তাকে সামষ্টিক অর্থনীতি বলে। সামষ্টিক অর্থনীতির আওতা ও পরিধি ব্যাপক ও বিস্তৃত।

উপসংহার : উপরােক্ত ক্ষেত্রগুলােতে ব্যষ্টিক এবং সামষ্টিক অর্থনীতির মধ্যে পার্থক্য পরিলক্ষিত হলেও এরা একে অপরের পরিপূরক । অর্থনৈতিক ব্যবস্থা বিশ্লেষণে একটি অপরটি ব্যতিরেকে অসম্পূর্ণ । সুতরাং অর্থনীতির ব্যষ্টিক ও সামষ্টিক কোনাে অংশকেই অস্বীকার করার উপায় নেই ।

Share This

0 Response to "ব্যষ্টিক ও সামষ্টিক অর্থনীতি কাকে বলে"

Post a Comment

Popular posts