ডিগ্রী ২য় বর্ষ ২০২১ রাষ্ট্রবিজ্ঞান ৪র্থ পত্র স্পেশাল শর্ট সাজেশন রেডি আছে নিতে চাইলে ম্যাসেজ করুন।
Welcome To TopSuggestion

Degree 1st year Political Science 1st Paper প্রশ্ন মানব প্রকৃতি সম্বন্ধে টমাস হবসের ধারণা কী? খ বিভাগ এর প্রশ্ন উত্তর

 প্রশ্ন: মানব প্রকৃতি সম্বন্ধে টমাস হবসের ধারণা কী?

অথবা, হবসের মানব প্রকৃতি আলোচনা কর।
অথবা, সংক্ষেপে মানব প্রকৃতি সম্পর্কে হবসের মতবাদ পর্যালােচনা কর।
অথবা, টমাস হবসের মানব প্রকৃতির বৈশিষ্ট্যসমূহ উল্লেখ কর.
অথবা, টমাস হবসের মানব প্রকৃতি কেমন ছিল?
উত্তর :
ভূমিকা : সপ্তদশ শতাব্দীর অন্যতম দার্শনিক ও ইউরােপীয় রাজনৈতিক দর্শনে গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থানকারী টমাস
হবস ১৫৮৮ সালে ইংল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন। ইংল্যান্ডের চরম দুর্দিনে শান্তিশৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠাকল্পে অসীম ক্ষমতাশালী স্থায়ী সরকারের প্রয়ােজনীয়তা তিনি অনুভব করেন। তাই তিনি রাজশক্তির সমর্থনে তার বিখ্যাত গ্রন্থ 'লেভিয়েথান রচনা করেন। এতে অত্যন্ত জোরালাে যুক্তির সাহায্যে তিনি তাঁর মতবাদের মাধ্যমে যেসব তত্ত্ব প্রদান করেছেন তা আধুনিক রাজনৈতিক চিন্তাধারাকে বিকশিত করতে সহায়তা করেছে।
মানপ্রকৃতি সম্পর্কে টমাস হবসের ধারণা : টমাস হবস মানবপ্রকৃতি সম্পর্কে অত্যন্ত হতাশাব্যঞ্জক ধারণা পোষণ করতেন। নিম্নে মানবপ্রকৃতি সম্পর্কে তার ধারণা আলােচনা করা হলো ।
১. মানুষ মূলত জড় পদার্থ : টমাস হবস মানবপ্রকৃতি বিশ্লেষণ করতে গিয়ে বলেছেন, মানুষ অন্যান্য জড়বস্তুর ন্যায় একটি পদার্থ। মানবদেহকে তিনি বস্তু এবং মানব মনকে ক্ষয়িষ্ণু পদার্থ হিসেবে বিবেচনা করেছেন। দেহও অন্যান্য জড়বস্তুর ন্যায় কার্যকর নীতির অধীন। জড়বস্তু হিসেবে মানুষকে অনুমান করা যায়। মানুষ ও জড়বন্তুর মধ্যে যেটুকু পার্থক্য আছে তা হচ্ছে মানুষের মধ্যে জড়বস্তুর ন্যায় অণু-পরমাণু ছাড়াও মুক্তি নামক আরেকটি বিশেষ অতিরিক্ত উপাদান কাজ করে। যুক্তির সাহায্যে সে চিন্তাভাবনা করে কাজ করতে চায় বলে তার আচরণে কিছুটা অনিশ্চয়তার আশঙ্কা থাকে। অন্যথায় জড় পদার্থের মত আচরণ সম্পর্ক সঠিকভাবে ভবিষ্যদ্বাণী করা যেতাে।
২. কর্মব্যস্ততা : মানবজীবন সর্বদা কর্মব্যস্ত- কর্মচাঞ্চল্যের শেষ নেই। মৃত্যু পর্যন্ত চলে কর্মব্যস্ততা।
৩, আকাক্সক্ষার মূল লক্ষ্য ক্ষমতা : মানবপ্রকৃতির আরেকটি বড় বৈশিষ্ট্য এই যে, যদিও সে আকাক্ষার দ্বারা পরিচালিত হয়, কিন্তু সে তার আকাকাকে শুধু বর্তমানের সুখ্যম্বেষণে সীমাবদ্ধ রাখে না। তার আকাঙ্ক্ষার মূল লক্ষ্য হচ্ছে এমন এক ক্ষমতা যার সাহায্যে সে তার ভবিষ্যৎ আকাক্ষার পথ সুগম করতে পারে।
৪. আকাক্ষা ও বিতৃষ্ণা টমাস হবসের মতে, যে জিনিস মানুষের অনুভূতিতে অনুকূল সাড়া জাগায় সে জিনিসের প্রতি মানুষের আকর্ষণ জন্মে এবং তা লাভ করার জন্য সে আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করে। অপরদিকে, যে বস্ত্র মানুষের অনুভূতিতে প্রতিকূল সাড়া জাগায় তার প্রতি তার বিতৃষ্ণা জন্মে। আকাক্ষিত বস্তু পেলে মানুষ আনন্দিত হয়, না পেলে দুঃখবােধ করে। মানুষ যে জিনিসের প্রতি আকর্ষণ বােধ করে টমাস হবৃসের মতে, সেটা তার জন্য কল্যাণকর। আর যে জিনিসের প্রতি মানুষ বিতয়া বােধ করে তা তার জন্য অকল্যাণকর।
৫. ব্যক্তিস্বাতন্ত্র্যবাণী: মানবপ্রকৃতি সম্পর্কে টমাস হবসের এ ধারণাকে ব্যক্তিস্বাতন্ত্রাবাদী বলা চলে। তাঁর মতে, মানুষ সম্পূর্ণভাবে স্বাতন্ত্র্যবাদ। অপরের সর্বস্ব হরণ করে স্বীয় স্বার্থরক্ষা ও স্বীয় উন্নতি সাধনই তার অন্তর্নিহিত প্রকৃতি। টমাস হবসের মানবপ্রকৃতির ধারণা ম্যাকিয়াভেলির ধারণার অনুরূপ।
৬. অসীম আকাক্ষা : টমাস হলের মতে, মানুষের আকাক্ষার শেষ নেই। একটি আকাঙ্ক্ষা পূরণ হলে অপর একটি আকাক্ষার উদয় হয়। কোনাে বস্তু একবার ভােগ করার পর তা ভবিষ্যাতেও ভােগ করার স্পৃহা জাগ্রত হয়।
৭. স্বার্থপরতা : টমাস হবসের মতে, মানুষ স্বভাবতই স্বার্থপর। তার যাবতীয় কর্মপ্রয়াস, ধ্যানধারণা, আবেগ অনুভূতি স্বার্থকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হয়। কাজেই স্বার্থের ব্যাঘাত ঘটলেই মানুষ কষ্ট পায়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, মানব প্রকৃতি মূলকথা হচ্ছে- মানুষ স্বার্থপর, লোভী, আত্মকেন্দ্রিক, ক্ষমতালি। টমাস হলের মতে, রাষ্ট্রের জন্মের আগে মানুষের এ স্বার্থপরতা বা অহকোরবােধের মধ্যে অন্যায় অকল্যাণকর বলে কিছু ছিল না। যখন থেকে রাষ্ট্রের জন্ম হয় তখন থেকেই এগুলাের নৈতিক, বৈধতা বা অবৈধতার প্রশ্ন দেখা দেয়।
Share This

0 Response to "Degree 1st year Political Science 1st Paper প্রশ্ন মানব প্রকৃতি সম্বন্ধে টমাস হবসের ধারণা কী? খ বিভাগ এর প্রশ্ন উত্তর"

Post a Comment

Popular posts