করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা নেই।। শিক্ষামন্ত্রী।
Welcome To TopSuggestion

২০ টি গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার পূর্নাঙ্গ সার্কুলার প্রকাশিত

আগামী ১ এপ্রিল থেকে গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হবে। ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত ভর্তি ওয়েবসাইটে গিয়ে ভর্তিচ্ছুরা আবেদন করতে পারবেন। এরপর প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল এবং চূড়ান্ত আবেদন শেষে আগামী ১৯, ২৬ জুন ও ৩ জুলাই গুচ্ছভুক্ত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে। নির্দেশিকাটি ভর্তির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাচ্ছে।✌️


এতে বলা হয়, শিক্ষার্থীরা একটি মাত্র ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ পূর্বক প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে উল্লেখিত যে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগে ভর্তির সুযোগ পাবে। প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে তার এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার বিভাগ (বিজ্ঞান, মানবিক, বাণিজ্য) সংশ্লিষ্ট একটি মাত্র ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।🤏

দুটি পর্যায়ে আবেদন করতে হবে– প্রাথমিক আবেদন ও চূড়ান্ত আবেদন (প্রাথমিক আবেদনের ভিত্তিতে চুড়ান্ত আবেদনের যোগ্য হিসাবে বিবেচিত হলে)।

ভর্তি পরীক্ষার নির্দেশিকায় বলা হয়, প্রাথমিকভাবে আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে মেধাক্রম অনুসারে প্রতিনিটি ইউনিটে চূড়ান্ত আবেদনের জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচিত হবে।💪

সেক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৬ সর্টিং ক্রাইটেরিয়া ক্রমানুসারে ব্যবহার করে প্রাথমিক আবেদনকারীদের মেধাক্রম প্রস্তুত করা হবে। প্রতিটি ইউনিট থেকে সর্বোচ্চ দেড়লাখ শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়।🤏

বিজ্ঞান শাখায় মেধাক্রম প্রস্তুতে ৬ সর্টিং ক্রাইটেরিয়ার মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে– এসএসসি ও এইচএসসির জিপিএ; এসএসসি ও এইচএসসির মার্কস; এইচএসসির পদার্থের জিপিএ; এইচএসসির পদার্থের মার্কস; এইচএসসির রসায়নের জিপিএ; এইচএসসির রসায়নের মার্কস।🗡

তাছাড়া বাণিজ্য ও মানবিক শাখায় মেধাক্রম প্রস্তুতে ৬ সর্টিং ক্রাইটেরিয়ার মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে– এসএসসি ও এইচএসসির জিপিএ; এসএসসি ও এইচএসসির মার্কস; এইচএসসির বাংলার জিপিএ; এইচএসসির বাংলার মার্কস; এইচএসসির ইংরেজির জিপিএ; এইচএসসির ইংরেজির মার্কস।🗡

.

ভর্তির নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, চূড়ান্ত আবেদনের সময় শিক্ষার্থীদের ৩১টি পরীক্ষাকেন্দ্র মধ্যে নূন্যতম ৫টি কেন্দ্র পছন্দের তালিকায় রাখতে হবে।✌️ 

এইচএসসি/সমমান কোর্সের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অবস্থান, এসএসসি ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর, পাসের বছরসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি বিবেচনাপূর্বক নিম্নে উল্লেখিত পদ্ধতিতে প্রতিটি শিক্ষার্থীর জন্য একটি কেন্দ্র-নির্ধারণী স্কোর (সর্বোচ্চ ১০০) প্রস্তুত করা হবে।🤨

.

কেন্দ্র-নির্ধারণী স্কোর হবে যথাক্রমে-

১) স্কুল/কলেজের অবস্থান (কেন্দ্র হতে দূরত্ব): ৪০ (সর্বোচ্চ)

২) প্রাপ্ত নম্বর (এসএসসি ও এইচএসসি): ৪০ (সর্বোচ্চ)

.

৩) পাশের বছর (২০১৯-০৫, ২০২০-১০): ১০ (সর্বোচ্চ)

৪) ছেলে/মেয়ে (ছেলে-০৫; মেয়ে-১০): ১০ (সর্বোচ্চ)

ভর্তির নির্দেশিকায় আরও বলা হয়, প্রাপ্ত স্কোর ও কেন্দ্রের পছন্দ ক্রমের ভিত্তিতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর পরীক্ষাকেন্দ্র নির্ধারণ করা হবে। নির্ধারিত পরীক্ষাকেন্দ্র পরিবর্তনের কোন সুযােগ নাই।

.

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,  প্রতিটি ইউনিটে সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫০ হাজার শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

.

গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষার চূড়ান্ত মানবন্টন, আবেদনের যোগ্যতা -

.

A ইউনিট (মানবিক) 

মান বন্টন 

বাংলা -৪০

ইংরেজি -৩৫

আইসিটি -২৫

.

B ইউনিট (বানিজ্য ) 


মান বন্টন 

একাউন্টটিং - ২৫

বিজনেস ম্যানেজমেন্ট-২৫

আইসিটি -২৫

বাংলা - ১৩

ইংরেজি - ১২

.

 C ইউনিট (বিজ্ঞান) 

মান বন্টন 

পদার্থ -২০

রসায়ন -২০

জীববিজ্ঞান,উচ্চতর গনিত, আইসিটি এই ৩ টা হতে যেকোনো ২ টা উওর করতে হবে ৪০ নাম্বার 

বাংলা -১০

ইংরেজি -১০

.

MCQ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা হবে। ১০০ নাম্বারের MCQ পরীক্ষা। 

.

গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষায় ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের জন্য ন্যূনতম যোগ্যতাও নির্ধারণ করা হয়েছে। এরমধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের মোট জিপিএর চতুর্থ বিষয় সহ ৮  ( আলাদাভাবে ৩.৫ করে)।  ব্যবসায় শিক্ষায় মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের মোট জিপিএর চতুর্থ বিষয় সহ ৭.৫ ( আলাদাভাবে ৩.৫ করে) এবং মানবিকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের মোট জিপিএর চতুর্থ বিষয় সহ ৭। ( আলাদাভাবে ৩.৫ করে)।🗡

🥀গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি নির্দেশিকা প্রকাশিত! 

প্রতি ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে ১,৫০,০০০ শিক্ষার্থী।

থাকছে সেকেন্ড টাইম।

থাকছে না বিভাগ পরিবর্তন। 

প্রাথমিক আবেদন: ০১/০৪/২০২১ হতে ১৫/০৪/২০২১.

প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল প্রকাশ: ২৩/০৪/২০২১.

চূড়ান্ত আবেদন: ২৪/০৪/২০২১ হতে ২০/০৫/২০২১.

প্রবেশপত্র ডাউনলোড: ০১/০৬/২০২১ হতে ১০/০৬/২০২১.

Share This

0 Response to "২০ টি গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার পূর্নাঙ্গ সার্কুলার প্রকাশিত"

Post a Comment

Popular posts