ডিগ্রী ২য় বর্ষ ২০২১ দর্শন ৪র্থ পত্র স্পেশাল শর্ট সাজেশন রেডি আছে নিতে চাইলে ম্যাসেজ করুন।
Welcome To TopSuggestion

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন ১ এপ্রিল থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত করা যাবে।

 


👉 পরীক্ষা শুরু হবে ১৯ জুন থেকে। যেসব শিক্ষার্থীদের ন্যূনতম যোগ্যতা থাকবে তারা সবাই প্রাথমিক আবেদন করতে পারবেন। 

★ আবেদনের যোগ্যতাঃ

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে প্রাথমিক আবেদনে শিক্ষার্থীদের কোনো ফি প্রদান করতে হবে না। 

যেসব শিক্ষার্থী ২০১৯ বা ২০২০ সালে এইচএসসি/আলিম ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ তারাই আবেদন করতে পারবেন।

➡️ ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর বিজ্ঞান শাখার জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৮.০, 

➡️ বাণিজ্য শাখার জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৭.৫ এবং

➡️ মানবিক শাখার জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৭.০ থাকতে হবে।

তবে প্রত্যেক শাখাতে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে।

শুধুমাত্র এবছরের জন্যই গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯ ও ২০২০ সালে এইচএসসি পাস করা শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। আগামী বছর থেকে পূর্ববর্তী বছরের পাস করা অর্থাৎ সেকেন্ড টাইমার শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন না***

প্রাথমিক আবেদনকারীদের মধ্য থেকে মেধার ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য শিক্ষার্থীদের ফলাফল ২৩ এপ্রিল স্বয়ংক্রিয়ভাবে মেসেজের মাধ্যমে জানানো হবে। গুচ্ছভুক্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একযোগে যতজন শিক্ষার্থীর পরীক্ষা নেয়ার সুযোগ রয়েছে মেধার ভিত্তিতে ততজন শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত আবেদন করার সুযোগ দেয়া হবে।

✅ প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃত শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে ৫০০/- (পাঁচশত) টাকা জমা দিয়ে ২৪ এপ্রিল থেকে ২০ মে তারিখের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য চূড়ান্ত আবেদন করতে হবে। সব পরীক্ষা নির্দিষ্ট পরীক্ষা কেন্দ্রে একযোগে দুপুর ১২টায় শুরু হবে।

একজন শিক্ষার্থী কমপক্ষে পাঁচটি পরীক্ষা কেন্দ্র নির্বাচন/চয়েস করতে পারবেন।⛔️⛔️ ২০১৯ সালের পাস করা শিক্ষার্থীরা বর্তমানে অধ্যয়নরত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ‘কেন্দ্র’ হিসেবে চয়েস বা পছন্দ করতে পারবেন না। প্রয়োজনে চয়েস করা নির্দিষ্ট কেন্দ্রের বাইরেও পরীক্ষা দিতে হতে পারে।

👉 আবেদনকারীরা ১ জুন থেকে ১০ জুন তারিখের মধ্যে অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন। ভর্তি পরীক্ষা ১৯ জুন থেকে শুরু হবে। ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্যাদি ভর্তি সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইট (www.gstadmission.org এবং www.gstadmission.ac.bd) এ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হবে।

✅ গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলোঃ

১. জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় 

২. বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর 

৩. শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় (নেত্রকোনা) 

৪. জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় 

৫. বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় 

৬. রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় 

৭. কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় 

৮. খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় 

৯. ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় 

১০. শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১১. পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১২. বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১৩. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়

১৪. রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১৫. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ

১৬. পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১৭. যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১৮. নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

১৯. মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

২০. হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

#উল্লেখ্য, 

👉 জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ (সম্মান) ভর্তির অনলাইন আবেদন ফরম বিতরণ চলবে 

৮ জুন থেকে ২২ জুন পর্যন্ত 

আর ২৮ জুলাই থেকে প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে।এছাড়া,

👉 ১ম বর্ষ স্নাতক (প্রফেশনাল) কোর্সের অনলাইন আবেদন বিতরণ চলবে ২৩ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত। আর 

১২ আগস্ট থেকে প্রফেশনাল কোর্সের ক্লাস শুরু হবে!

বিস্তারিত পাওয়া যাবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইটে: www.nu.ac.bd/admissions


Share This

0 Response to "২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন ১ এপ্রিল থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত করা যাবে।"

Post a Comment

Popular posts